এক্সনহোস্ট থেকে সহজেই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন বিকাশের মাধ্যমে

বিকাশের মাধ্যমে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন

নতুন ডোমেইন কিনতে এক্সনহোস্টের এর লাইভচ্যাট, হেল্পডেক্স ও সেসলস নাম্বারে যারা অনুসন্ধান করে তারা একটি প্রশ্ন প্রাই করে থাকে অামি কি বাংলাদেশি টাকায় ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারব । বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করে কিভাবে সহজেই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা যায় সে বিষয়টিই  বিস্তারিত দেখানো হয়েছে এই ভিডিওতে। এক্সনহোস্টে .com ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে দাম পরে ৮৫০ /টাকা প্রতি বছর। রিনিউ ও ডোমেইন ট্রান্সফার ফী ও সেম।

ডোমেইন ও ওয়েবহোস্টিং রিলেটেড দরকারি টুলস

আইপি চেক টুলস

ইন্টারনেট এ যুক্ত হবার জন্য প্রতিটি কম্পিউটারের একটি করে আইপি অ্যাড্রেস লাগে। প্রতিটি আইপি অ্যাড্রেস ইউনিক ও ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। দুই ধরনের আইপি অ্যাড্রেস রয়েছে প্রাইভেট আইপি, পাবলিক আইপি। বিভিন্ন কারনে আইপি এ্যাড্রেস জানার দরকার হয় আইপি অ্যাড্রেস চেক করার অনেক উপায় আছে। ধরুন আপনার প্রতিষ্ঠানের বা আপনার নিজস্ব কোন ওয়েবসাইট আছে কোন কারনে যদি আপনার আইপি অ্যাড্রেস সার্ভারের ফায়ারওয়ালে ব্লক থাকে তাহলে আপনি আপনার কাংক্ষিত ওয়েবসাইট দেখতে পাবেন না বা আপনার পিসির ব্রাউজারে প্রদশিত হবে না। আপনি যদি আপনার হোস্টিং প্রভাইডারের সাথে যোগাযোগ করেন হোস্টিং প্রভাইডার আপনাকে বলবে আপনি কোন আইপি থেকে আপনার সাইট ব্রাউজ করতে পারছেন না। তখন আপনি আইপি অ্যাড্রেস জানার জন্য এই আইপি চেকার টুলস এ ক্লিক করে অতি সহজেই আপনার আইপি জেনে নিতে পারবেন।

ডোমেইনের হুইজ চেক

কোন ওয়েব সাইট অনলাইনে পাবলিশ করতে চাইলে তা কোন একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে করতে হয়। কোন ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নামে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে কিছু তথ্য দরকার হয় যেমন যে ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান ডোমেইনটি রেজিস্ট্রেশন করবে তার নাম, ঠিকানা , ফোন নাম্বার ইত্যাদি। ডোমেইন হুইজের তথ্যই বলে দিবে ডোমেইনটির মালিকানা কার নামে বা কে ডোমেইনের মালিক। ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের সময় যদি হুইজ ইনফরমেশনে যে রেজিস্ট্রেশন করেছে তার তথ্য না দেয়া থাকে তাহলে সেই ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান সেই ডোমেইনের মালিক বা ওনার বলে বিবেচিত হবে না। তাই ডোমেইনের মালিকানা বা স্বত্ব প্রমানের জন্য হুইজ তথ্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আপনার ডোমেইনটি আপনার তথ্য ব্যাবহার করে কিনা হয়েছে কিনা তার হুইজ ইনফরমেশন দেখতে পারবেন এই হুইজ চেকারের মাধ্যমে।

ডোমেইনের ডিএনএস চেক

যে কোন ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের পর ডোমেইনটি অনলাইনে পাবলিশের জন্য হোস্টিংসার্ভারে হোস্ট করতে হয়। আপনার ডোমেইনটি কোথাও হোস্ট করা আছে কিনা বা কোন হোস্টিং প্রভাইডারের হোস্টিং সার্ভারে হোস্ট করা আছে তা চেক করার বিভিন্ন ওয়ে আছে। ডিএনএস চেক করার এই অনলাইন টুলটি দিয়ে খুব সহজেই আপনি আপনার ডোমেইনটি কোন হোস্টিং সার্ভিস প্রভাইডের কাছে হোস্ট করা আছে বা আপনার ডোমেইনটি কোন ডোমেইননেম সার্ভারে পয়েন্ট করা আছে তা সহজেই চেক করতে পারবেন।

এসইও অপটিমাইজ আর্টিকেলের জন্য চেক লিস্ট

যে কোন অার্টিকেলই র‍্যাংক হবার জন্য অনপেজ অপটিমাইজসন গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা পালন করে। এসইও অপটিমাইজ আর্টিকেলের জন্য যে বিষয় গুল গুরুত্তপূর্ন তার একটি লিস্ট নিচে দেয়া হল।

আর্টিকেলের জন্য লিস্ট

  •  কিওয়ার্ড স্টাফিং যেন না হয় সেবিষয়ে সব সময় লক্ষ রাখতে হবে তানাহলে গুগল আপনার প্রিয় সাইটকে পেনালাইজ করতে পারে।
  • কিওয়ার্ড ডেনসিটি ২% এর উপরে যেন না হয়।
  • পোস্ট বা আর্টিকেল এর টাইটেল সর্বচ্চ ৫০ ওয়ার্ডের মধ্যে যেন থাকে তবে ভাল হয় ৪০ ওয়ার্ডের মধ্যে করতে পারলে।
  • আপনার ফোকাস ( exact keywords ) কিওয়ার্ডটি যেন অবশ্যই পোস্ট/আর্টিকেল এ থাকে এতে করে সার্চ ইঞ্জিন সহজেই আপনার পোস্ট চিনতে পারবে।
  • ফোকাস কিওয়ার্ডটি যেন পার্মালিঙ্কে থাকে এবং তা যেন মিনিংফুল হয়।
  • ৪ ওয়ার্ডের মধ্যে পার্মালিংক শেষ করতে পারলে ভাল কারন এর বেশি গুগল সার্চে শো করেনা।
  • পোস্ট/অার্টিকেলের টাইটেল ৮ কিওয়ার্ডের মধ্যে হলে সবচেয়ে ভাল হয় কারন এর চেয়ে বেশি গুগল সার্চে দেখায় না।
  • পোস্ট/আর্টিকেলের মেটা ডেসক্রিপশন ১৪০ ওয়ার্ডের মধ্যে সুন্দর করে গুছিয়ে লিখতে হবে।

আর্টিকেল এর অনপেজ অপটিমাইজেসন বিষয়ে অাপনাদের কাজের অভিজ্ঞতা কমেন্ট করে আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারেন।  ধন্যবাদ আপনাকে সময় নিয়ে পোস্ট পরার জন্য আর্টিকেল এর অনপেজ অপটিমাইজেসন বিষয়ে আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন চেষ্টা করব আপরাদের প্রশ্নের জবার দেয়ার। পোষ্টটি পরে যদি ভাল লাগে ও ইনফর্মেটিভ মনে হয় তাহলে অন্যদের সাথে শেয়ার করবেন দয়া করে।

কিওয়ার্ড ডেনসিটি প্রমিনেন্স ও প্রক্সিমিটি কি!!

প্রথমেই বলেছি আমি প্রফেশনাল আরটিকেল রাইটার না। নিজের প্রয়োজনে আরটিকেল রাইটিং নিয়ে পড়াশুনা করতে গিয়ে নতুন কিছু বিষয় শিখলাম তাই আপনাদের সাথে শেয়ার করছি হয়ত যারা আরটিকেল রাইটিং এর সাথে জরিত বা ওয়ার্কারদের দিয়ে আর্টিকেল লিখিয়েনেন তাদের কাজে লাগবে তাই বিষয় গুল আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।

কিওয়ার্ড ডেনসিটি ( Keyword Density )

কিওয়ার্ড ডেনসিটি হল একটি কিওয়ার্ড একটি আরটিকেলে কতবার ব্যাবহার করা হয়েছে তার ঘনত্বকে বুঝায়। ধরাযাক ‘ওয়েব হোষ্টিং’ টপিকে ৫০০ ওয়ার্ডের একটি আরটিকেলে লিখা হয়েছে তাহলে সর্বচ্চ ১৫ বার ওয়েব হোস্টিং ওয়ার্ডটি আর্টিকেল এ রিপিট করা যাবে। কোন কারনে যদি এর বেশিহয়ে যায় তাহলে গুগল আর্টিকেলটিতে কিওয়ার্ড স্টাফিং (Keyword stuffing) হয়েছে হিসেবে গন্য করে। তবে প্রফেশনাল আরটিকেল রাইটিং এক্সপার্ট রা সাজেস্ট করে কিওয়ার্ডের ডেনসিটি ২ পাসেন্টের নিচে রাখার। সর্বচ্চ ডেনসিটি ৩% তবে সব সময় ২ % এর নিচে রাখা ভাল। তাই ৫০০ ওয়ার্ডের একটি আর্টিকেলে ১০ বারের চেয়ে কম কিওয়ার্ড রিপিট করলে বেটার।

কিওয়ার্ড প্রমিনেন্স ( Keyword Prominence )

কিওয়ার্ডের প্লেসমেন্ট কে প্রমিনেন্স বলে একটি উদাহরন দিয়ে বলল্লে বিষয়টি হয়ত ক্লিয়ার করে বুঝা যাবে। নিচের সার্চ রেজাল্ট দেখুন Masumul Haque লিখে সার্চ দেয়া হয়েছে টাইটেলের শুরুতেই masumul haque কিওয়ার্ড আছে ওয়েব সাইটের ইউ আর এল ও কিওয়ার্ডটি আছে। যে কিওয়ার্ডের জন্য অাপনার কনটেন্ট অপটিমাইজ করতে চাইছেন সেই কিওয়ার্ডটি কনটেন্টের টাইটেল, ইউ আর এল ও প্রথম প্যারাগ্রাফের প্রথম লাইনে যদি যদি থাকে তাহলে কিওয়ার্ড প্রমিনেন্স ১০০% বলা হয়। অনেকেই অপটিমাইজকৃত কিওয়ার্ডটি তাদের ইউ আর এল এ ব্যাবহার করেন না তার মানে তিনি লেস কিওয়ার্ড প্রমিনেন্স ব্যাবহার করছেন। ইউঅারএল এ কিওয়ার্ডের উপস্থিতি অভিজ্ঞরা পজেটিভ ভাবেই দেখেন।

mhaque

কিওয়ার্ড প্রক্সিমিটি ( Keyword Proximity )

কিওয়ার্ড প্রক্সিমিটি বলতে একটি ওয়ার্ড থেকে অন্য একটি ওয়ার্ডের দুরত্বকে বুঝায় নিচের ইমেজটি লক্ষ করুন Login Script in php লিখে গুগলে সার্চ দেবার পর যে সার্চ রেজাল্ট দেখাচ্ছে Login Script in php কিওয়ার্ডটি বোল্ডহয়ে হয়ে অাছে ও পাশাপাশি অবস্হান করছে সার্চরেজাল্টের ডেসক্রিপসনেও কাংক্ষিত কিওয়ার্ডটি বোল্ড হয়ে আছে। যে কিওয়ার্ড লিখে সার্চ দেয়া হয় তার সবগুল কিওয়ার্ড যদি টাইটেল বা ডেসক্রিপশনে পাশাপাশি অবস্হান করে তাহলে কিওয়ার্ড প্রক্সিমিটি হল ১০০%। সবসময় প্রক্সিমিটি ১০০% নাও হতে পারে। ১০০% কিওয়ার্ড প্রক্সিমিটি সার্চ রেজাল্টের ক্লিকথ্রুরেট (click through rate )বেশি হয়ে থাকে।

Proximity

কিওয়ার্ড ডেনসিটি প্রমিনেন্স ও প্রক্সিমিটি বিষয়ে যদি কারো কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন চেষ্টা করব আপনাদের প্রশ্নের জবাব দেবার। পোস্টের বিষয়ে অাপনার যদি শেয়ার করার মত নলেজ ও অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাবেন দয়া করে। ধন্যবাদ আপনাকে পোস্টটি পরার জন্য যদি পোস্ট পড়ে ভাল লাগে তাহলে শেয়ার দিয়ে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন।

আনলিমিটেড জিমেইল একাউন্ট করুন সহজেই।

আমার কাছে অনেকেই জানতে চেয়েছে অানলিমিটেড জিমেইল একাউন্ট করার কোন ওয়ে অাছে কিনা তাদের জন্য এই পোষ্টের অবতারনা।

প্রয়োজনিয়:  আনলিমিটেড জিমেইল একাউন্ট করতে আমাদের প্রয়োজন পরবে একটি স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট অবশ্যই এ্যাপড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত হতে হবে।

মেইন উইন্ড থেকে নিচের ছবিতে দেয়া স্টেপ গুল অনুসরন করতে হবে  All apps -> settings -> Add account

Multiple-Accounts

এখন নাম নতুন ইমেইল এ্যাড্রেস দিয়ে ভিরিফিকেসন স্টেপ গুল পার হয়ে নতুন একাউন্ট করতে পারবেন। একই ভাবে সর্বচ্চ ১০ টি ইমেইল একাউন্ট করা যাবে। ১০ একাউন্ট করা হয়েগেলে নিচের এরর এর মত এরর দেখাবে

problem_servers

এখান থেকে পেছনে ব্যাক করে আবার settings ->Apps এ গিয়ে খুজে নিচের ঝবির মত google services framework অপশনটি খুজে বের করুন

apps

এর পর Clear Data এই বাটনটিতে ক্লিক করে । অাবার পুনরায় এ্যাড নিউ একাউন্ট এ ক্লিক করে নতুন একাউন্ট করতে পারবেন।

clear_data

কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব।